শনিবার | ২৪ অক্টোবর, ২০২০

খাগড়াছড়িতে সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে রেড ক্রিসেন্ট

প্রকাশঃ ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১০:২৯:৪৯ | আপডেটঃ ২৪ অক্টোবর, ২০২০ ০৫:৫২:০৩
সিএইচটি টুডে ডট কম, খাগড়াছড়ি। খাগড়াছড়ি জেলার ১১টি সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ (আইপিসি) প্রকল্পের আওতায় জীবানুমুক্ত করণের কাজ করছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, খাগড়াছড়ি ইউনিট।

খাগড়াছড়ি আধুনিক জেলা সদর হাসপাতাল, জেলা মা ও শিশু হাসপাতাল সহ খাগড়াছড়ি জেলাধীন ৮ উপজেলার আরও ৯টি হাসপাতালে জীবানুমুক্তকরণ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং হাসপাতালের স্বাস্থ্য কর্মী, ডাক্তার ও রোগীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিতে কাজ করছে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্যি রেড ক্রস (আইসিআরসি) সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম বাস্তবায়নে সহযোগিতা করছে।

এছাড়া খাগড়াছড়ি জেলার সর্বমোট ১১টি সরকারি হাসপাতালে প্রয়োজনীয় সংখ্যাক স্বাস্থ্য সুরক্ষা সরঞ্জাম সরবরাহ করেছে রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট। এরমধ্যে রয়েছে জীবানুমুক্ত করণের ক্লোরিন সলিউশন, সার্জিক্যাল মাস্ক, পিপিই, সার্জিক্যাল ডিসপোজাল গাউন, গামবুট, হ্যান্ড গ্লাভস, ফ্লোর ক্লিনার মোপ, কন্টেইনার, ড্রাম, গগলেস সহ অন্যান্য সুরক্ষা সরঞ্জাম।

এদিকে জেলার ১১টি হাসপাতালে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য ১টি করে বার্নার বা বর্জ্য ব্যবস্থাপনা চুল্লি স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিটি হাসপাতালে হাত ধোয়া ব্যবস্থার মান উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন অনুসারে বেসিন স্থাপন করা হবে।

উল্লেখ্য, পার্বত্য চট্টগ্রামের তিন জেলা খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি ও বান্দরবানের প্রতিটি হাসপাতালে কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের কারণে সৃষ্ট সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। এই কাজ বান্তবায়নে সার্বিক সহযোগিতা করছে ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব দ্যি রেড ক্রস (আইসিআরসি)। আগামী নভেম্বর পর্যন্ত এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

রেড ক্রিসেন্টের এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্যে জানানো হয়।

খাগড়াছড়ি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions