শনিবার | ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বান্দরবানে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের আষাঢ়ী পূর্নিমা পালন

প্রকাশঃ ০৩ অগাস্ট, ২০২০ ০১:৫৫:৪৭ | আপডেটঃ ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০২:৪২:৫২
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বৌদ্ধ ধর্মের প্রবর্তক মহামানব গৌতম বুদ্ধের জন্ম , বুদ্ধত্ব লাভ ও মহাপরিনির্বান এই ত্রি-স্মৃতি বিজরিত আষাঢ়ী পূর্নিমা পালন করছে বৌদ্ধ সম্প্রদায়। আষাঢ়ী পূর্ণিমা উপলক্ষ্যে বান্দরবানের বৌদ্ধ বিহারগুলো সাজানো হয়েছে বর্নিল সাজে,আর শত শত ভক্তের পদচারণায় মুখরিত হচ্ছে দিনটি।

সকালে ধর্মপ্রান বৌদ্ধ নারী-পুরুষেরা ইহকাল ও পরকালের শান্তির জন্য বিভিন্ন উপসনালয়ে উপস্থিত থেকে প্রার্থনায় অংশ নেয়। এসময় নারী-পুরুষ ভক্তরা বাতি প্রজ্জলন ,ধর্মীয় প্রার্থনা, ভান্তেদের খাবার প্রদানসহ নানা ধর্মীয় রীতিনীতি পালন করে।

আষাঢ়ী পুর্ণিমা উপলক্ষে ৩ আগস্ট(সোমবার) সকালে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয় এবং শোভাযাত্রাটি বান্দরবানের উজানীপাড়া রাজগুরু মহাবৌদ্ধ বিহার থেকে শুরু হয়ে রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারে এসে শেষ হয়। পরে বান্দরবানের উজানীপাড়া বৌদ্ধ বিহার ও রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারসহ বিভিন্ন বিহারে ধর্মীয় প্রার্থনার আয়োজন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন বান্দরবানের বোমাং রাজা উ চপ্রু,পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা,সাবেক মহিলা সংসদ সদস্য মাম্যাচিং,পার্বত্য জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মংক্যচিং চৌধুরী,পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কে এস মং মারমা, রাজপুত্র মংওয়ে প্রু,রাজপুত্র সাচিং প্রু জেরী সহ বিহারের দায়িক দায়িকাবৃন্দরা। এসময় বিহারে ধর্মীয় দেশনা প্রদান করে উজানীপাড়া রাজগুরু মহাবৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ ড.সুবন্নলংকারা মহাথের।

আষাঢ়ী পুর্ণিমা উপলক্ষে বৌদ্ব ধর্মালম্বী পরিবারে বইছে আনন্দের বন্যা। বান্দরবানের রাজবিহার, কালাঘাটা গৌতম বৌদ্ধ বিহার ,বালাঘাটা বৌদ্ধ বিহার,উজানী পাড়া বৌদ্ধবিহারসহ বিভিন্ন  বিহারে চলছে প্রার্থনা, গুরু ভক্তি, ছোওয়াইং প্রদান (ভান্তেদের খাবার দান), প্রদীপ প্রজ্জলন, বোধিবৃক্ষমূলে চন্দন জল প্রদান, বুদ্ধ মূর্তি স্মান সহ নানান ধর্মীয় আয়োজন।



আষাঢ়ী পুর্ণিমা উপলক্ষে তিনমাস বর্ষাবাস পালন করবে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা, এসময় সংযম পালনের মধ্য দিয়ে ন্যায়,সৎ পথে চলা, বুদ্ধের জীবনানুসারন ও পরোপকারে তিনমাস অতিক্রম করবে প্রতিটি বৌদ্ধ ধর্মালম্বী পরিবার।

বান্দরবান |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions