কাপ্তাইয়ে ভ্রমণ পিপাসুদের প্রিয় স্পট প্রশান্তি পার্ক

প্রকাশঃ ২৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০১:৪৭:১২ | আপডেটঃ ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০১:২৪:০০
এম.কামাল উদ্দিন, রাঙামাটি। বেসরকারি ভাবে পরিচালিত  জেলার কাপ্তাই প্রশান্তি পার্কে পর্যটকদের এখন উপচে পড়া ভীড়। শীতের শুরুতে নতুন নতুন পর্যটকদের আগমন বেড়েছে। প্রতি দিনই দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পর্যটক আসছে কাপ্তাই প্রশান্তি পার্কে। পর্যটকদের বিনোদন দিতে পার্কটিতে রয়েছে কাপ্তাই লেকে ভ্রমনের সুযোগ। এছাড়াও রয়েছে বিভিন্ন ধরনের রাইডারসহ জলপরি। প্রায় সাড়ে ৫একর জায়গা জুড়ে রয়েছে পর্যটন পিকনিক স্পট রয়েছে, রয়েছে নিজস্ব আবাসিক ব্যবস্থা ও নিজস্ব রেস্টুরেন্ট। যা বিনোদনের জন্য স্বল্প মূল্যে পরিবেশন করা হয় পর্যটকদের।

প্রশান্তি পার্কটি কাপ্তাই উপজেলার বালুচড়া নামক স্থানে অবস্থিত । পার্কটি যে স্থানে গড়ে উঠেছে সেখানে যাতায়াতের পথ রয়েছে জল ও স্থল দু’ ভাবে যাওয়া যায় এই পর্যটন স্পটে। কাপ্তাই লেক দিয়েও ঘুরে আসা যায়। আবার  যানবাহন নিয়ে সড়ক যোগেও যাওয়া যায় পিকনিক স্পট গুলোতে। এক কথায় বলা যায় লেক ও সড়ক ঘেঁষে গড়ে উঠেছে প্রশান্তি পার্কটি। এখানে শিশু ও বয়স্কদের জন্য রয়েছে পৃথক পৃথক বিনোদন ব্যবস্থা। এছাড়াও পর্যটকদের রাত্রি যাপনের জন্য স্বল্প মূল্যে রয়েছে বেশ কিছু কটেজ,যা সত্যি মন কেড়ে নেয়।

চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া থেকে আসা পর্যটক তারেক বলেন,প্রশান্তি পার্কের পিকনিক স্পটগুলো ঘুরে অনেক অনেক আনন্দ পেলাম কারন লেক ও সড়ক বেষ্টিত পিকনিক স্পটগুলো। দু’ভাবে বিনোদন উপভোগ করা যায়। সব চেয়ে মজার ব্যাপার হলো কাপ্তাই প্রশান্তি পার্কে সরাসরি গাড়ী নিয়ে এসে বিনোদন শেষে আবার গাড়ী করে চলে যাওয়া যায়। সব কিছু মিলিয়ে এখানে পরিবার পরিজন নিয়ে অনেক মজা ও আনন্দ উপভোগ করা যায়।
ঢাকা থেকে আসা পর্যটক যুবক মো.মেহের আলী বলেন,এই পিকনিক স্পট গড়ে উঠার পর পর আমি ২/৩ বার কাপ্তাই প্রশান্তি পার্কে বিনোদনের উদ্দেশ্যে এসেছি। অনেক মজা করেছি এখানে এসেছে। প্রশান্তি পার্কে গাড়ী নিয়ে এসে চমৎকার ভাবে ঘুরে ও বিনোদন উপভোগ করে ফের ঢাকা ফিরতে পারি। এটা আমাদের জন্য অনেক সাশ্রয়। সব কিছু মিলিয়ে অনেক ভাল একটি পরিবেশে প্রশান্তি পার্কটি স্থাপিত হয়েছে।

কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ নাসির উদ্দিন বলেন,জেলার কাপ্তাই উপজেলা প্রাচীন উপজেলা। এ উপজেলাতে রয়েছে কাপ্তাই বাঁধ জল বিদুৎ কেন্দ্র,কাগজ শিল্প কারখানা ,পলিটেকনিক ইনষ্টিটিউট  ও নামীদামি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এর সাথে যোগ হয়েছে বিনোদন কেন্দ্র প্রশান্তি র্পাক ও পিকনিক স্পট। কাপ্তাইয়ে যে সব বেসরকারি পর্যটন পিকনিক স্পট রয়েছে এদের মধ্যে সুনাম অর্জন করেছেন প্রশান্তি পার্কটি। এখানে সকল বয়সের পর্যটক বেড়াতে আসতে পারে। নিরাপত্তার কোন অভাব নেই। যোগাযোগ ব্যবস্থাও ভাল।

প্রশান্তি পার্কের ম্যানেজার মোঃ মাসুদ তালুকদার বলেন, আমরা পর্যটকদের সেবায় নিবেদিত, পর্যটকদের সকল নিরাপত্তাসহ সব ধরনের বিনোদনের ব্যবস্থা করে থাকি। আমাদের পর্যটন স্পটগুলো কেউ যদি একবার ভালো করে ঘুরে বেড়ায় তাহলে দ্বিতীয় বার আসতে মনে চাইবে। আমরা পর্যটকদের চাহিদা মেটাতে শিশু বয়স্কসহ সবার জন্য বিনোদনের ব্যবস্থা রেখেছি। স্বল্প মূল্যে খাওয়া দাওয়া ও রাত্রি যাপনের ব্যবস্থা রেখেছি। প্রশান্তি পার্কে যে সব পর্যটন পিকনিক স্পট রয়েছে চাইলে পর্যটকেরা সারা দিন বেড়িয়ে নিজ নিজ গন্তব্য স্থলে চলে যেতে পারবে।