শান্তি বিনষ্টকারীদের কোন প্রকার আশ্রয় না দেয়ার আহবান দীপংকর তালুকদার এমপির

প্রকাশঃ ২১ জুনe, ২০১৯ ০৯:৪৭:৪৪ | আপডেটঃ ১৮ অগাস্ট, ২০১৯ ০৩:৪৪:৫৪
সিএইচটি টুডে ডট কম, লংগদু (রাঙামাটি)। রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন দপ্তরের সকল কর্মকর্তা, কর্মচারীদের সাথে রাঙামাটি সংসদ সদস্য এমপি দীপংকর তালুকদার এর মতবিনিময় ও উপজেলা মাসিক আইনশৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার  লংগদু উপজেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে নির্বাহী অফিসার প্রবীর কুমার রায়ের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, রাঙামাটি সংসদ সদস্য ও সাবেক পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার এমপি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আবাসন ব্যবস্থা, বিদ্যুৎ এবং রাস্তাঘাট, ব্রিজ এর সংস্কার মূলক কাজের দ্রুত সমাধানের নিশ্চয়তা প্রদান করেন। তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রামে সরকারের ব্যাপক উন্নয়ন দেখে একটি পক্ষ সহ্য করতে না পেরে মিথ্যাচার করে বেড়াচ্ছে। অন্যের নাক কেটে নিজের যাত্রা ভঙ্গ করার মত। তাদের কোন জাত ধর্ম নাই। তাদের চিহ্নিত করে রাখুন।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী পার্বত্য চট্টগ্রামে বিদ্যুতায়নের জন্য ছয়শত কোটি টাকা বরাদ্ধ দিয়েছে। লংগদু উপজেলাবাসী অবশ্যই এর সুফল পাবে।   

বিশেষ অতিথি ছিলেন, লংগদু উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল বারেক সরকার, লংগদু জোনের ভারপ্রাপ্ত উপ-অধিনায়ক মেজর মাহমুদুল হাসান এসবিপি, রাজনগর জোনের মেডিকেল অফিসার ক্যাপ্টেন আবু সাইদ মোঃ মোশাররফ হোসেন, বাইট্টাপাড়া ৩৬ আনসার ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক মজিবুল হক, রাঙামাটি জেলা পরিষদ সদস্য মো. জানে আলম, লংগদু থানা অফিসার ইনচার্জ রঞ্জন কুমার সামন্ত, দীঘিনালা বিদ্যুৎ বিভাগের আবাসিক কর্মকর্তা প্রকৌশলী রতন কুমার দে, লংগদু উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ডা. অরবিন্দ চাকমা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ঝান্টু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ারা বেগম, সকল ইউপি চেয়ারম্যান, সকল সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, বিভিন্ন বিদ্যালয়, মাদ্রাসার প্রধানগণ, বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক, সহ স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেনীর রাজনৈতিক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গন উপস্থিত ছিলেন।

আইনশৃঙ্খলা ও মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ব্যক্তিরা এমপি দীপংকর তালুকদার এর কাছে বিভিন্ন দাবি দাওয়া তুলে ধরেন। 

সভায় প্রধান অতিথি দীপংকর তালুকদার এমপি বক্তব্যে তিনি লংগদু অফিসার্স ক্লাব ও কর্মচারী ক্লাবঘর পাকা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানাবেন জানিয়ে দুই ক্লাবকে উন্নয়নের জন্য দুই লক্ষ টাকা করে চার লক্ষ টাকা অনুদান প্রদানের ঘোষনা করেন।

এসময় তিনি আরো বলেন,উন্নয়নের লক্ষে এলাকায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখা জরুরী। তাই কেউ গুজবকে বিশ্বাস করবেন না, গুজবে কান দিবেন না। কেননা গুজব মিথ্যা ছড়িয়ে সমাজে শান্তি বিনষ্ট করে। শান্তি বিনষ্টকারীদের কোন প্রকার আশ্রয় প্রশ্রয়দেবেন না। পাশাপাশি উপজেলা থেকে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজি নির্মূলের লক্ষ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কে সর্তক থাকার পরামর্শ দেন।

এসময় হতদরিদ্র ৩ জন ব্যক্তিকে সোলার, টিনসহ ৬,০০০ হাজার টাকার চেক প্রদান করেন।