পুর্নিমার দিনে বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে সন্ত্রাসী হামলার হুমকিতে পুলিশের বিশেষ আইন শৃঙ্খলা সভা

প্রকাশঃ ১৬ মে, ২০১৯ ০৫:৩০:২২ | আপডেটঃ ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০২:১৩:৩৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। আগামী ১৮ মে দেশের বিভিন্ন স্থানে বৌদ্ধ পুর্নিমার দিনে জঙ্গী হামলার হুমকি দেয়ায় রাঙামাটি জেলার বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ বৌদ্ধ মন্দিরের পরিচালনা কমিটিসহ বিভিন্ন সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দের সাথে বিশেষ আইন শঙ্খলা সভা করেছে। আজ বুধবার সকাল ১১টায় পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।  পুলিশ সুপার আলমগীর কবিরের সভাপতিত্বে বৈঠকে জেলার সবগুলো বৌদ্ধ বিহারে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশের পাশাপাশি স্থানীয়দের সমন্বয়ে বিশেষ দল গঠনের পরামর্শ দেন।


সভায় জানানো হয়, হামলার সবচেয়ে ঝুকির মধ্যে রয়েছে রাঙামাটি রাজবন বিহার, কাপ্তাই চিং¤্রং বৌদ্ধ বিহার।  এসব বিহারে বহু মানুষের সমাগম হওয়ায় এ ঝুঁকি বেড়েছে বলেছেন বিহার পরিচালনা কমিটির সদস্যরা। দুটি বিহারে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোর দিতে পুলিশ প্রশাসনের কাছে দাবী করেছেন বিহার পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ।

এসময় পুলিশ সুপার বলেন, জঙ্গিগোষ্ঠী বৈশাখী পুর্নিমা দিন বাংলাদেশের বৌদ্ধ মন্দিরে হামলা করতে পারে গোয়েন্দা তথ্যর ভিত্তিতে হামলা রোধে করণীয় ঠিক করতে পুলিশ এ বৈঠক করে।

এসময় পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয় সন্ত্রাসীরা রং বস্ত্রধারী বুদ্ধ ভিক্ষু, গর্ভবর্তী পূন্যার্থী সেজে জঙ্গিরা বৌদ্ধ মন্দিরে প্রবেশ করে হামলা চালাতে পারে। তাই অপরিচিত কাউকে সন্দেহ করলে তাকে তল্লাশি করার পরামর্শ দেয়া হয়। এছাড়া জনসমাগম স্থলে গাড়ি পার্কিং করতে না দেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

পুর্নিমার আগে দিনগুলোতে রাঙামাটিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করবে পুলিশ। এ অভিযানে ব্যবসায়ীসহ রাঙামাটি মানুষের কাছে সহযোগীতা কামনা করেন পুলিশ সুপার।

বৈঠকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ছুপি উল্লাহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা,  জেলার ১০ উপজেলার বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারের পরিচালনা কমিটির সদস্যরা ছাড়াও বুদ্ধ ভিক্ষুরা উপস্থিত ছিলেন।