মদ খাওয়া নিয়ে দ্বন্ধ, বন্ধুকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ

প্রকাশঃ ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ০৫:০৭:১৩ | আপডেটঃ ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪ ১২:৩৯:২৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, বান্দরবান। বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলায় ক্যথুইপ্রু মারমা (৩৫) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ  উঠেছে তার বন্ধু মংরে মারমার (৩৭) এর বিরুদ্ধে।
রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাতে উপজেলার ২নম্বর তারাছা ইউপির নোয়াপাড়ার লতাঝিড়ি (বই খ্যং) এলাকায় এঘটনা ঘটে। ক্যথুইপ্রু মারমা লতাঝিড়ি (বই খ্যং) এলাকার ক্যবাইচিং মারমার ছেলে। অভিযুক্ত মংরে মারমাও একই এলাকার মেদোশে মারমার ছেলে।

স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, ক্যথুইপ্রু মারমা ও মংরে মারমা দুজনে বন্ধু। রোববার বিকেলে মংরে ও ক্যথুইপ্রু মদ খাওয়ার জন্য পাশের পাহাড়ের জুম ঘরে যায়। রাতে ক্যথুইপ্রু ঘরে না ফেরায় পরিবারের লোকজন তাকে খোঁজাখুঁজি করে, পরে সোমবার( ২৫ সেপ্টেম্বর) সকালে লতাঝিড়ি এলাকার একটি জুম ঘরে বস্তাবন্দি অবস্থায় ক্যথুইপ্রুর মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। এই ঘটনার পর থেকে মংরেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না আর স্থানীয়দের ধারণা ক্যথুইপ্রুকে হত্যা করেছে মংরে মারমা।

রোয়াংছড়ি উপজেলার ২ নম্বর তারাছা ইউপি চেয়ারম্যান উনুমং মারমা স্থানীয়দের বরাতে জানান, মংরে মারমা নামে এক যুবক তার বন্ধু ক্যথুইপ্রু মারমাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে শুনেছি। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, মদ খেতে গিয়ে দুই বন্ধুর মধ্যে ঝগড়া সৃষ্টি হয় আর পরর্বতীতে এই হত্যাকান্ড হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল মান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছে ,এই বিষয়ে আইনগত কার্যক্রম চলমান রয়েছে।