সোমবার | ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

রাঙামাটিতে দোতলা ভবনের মালিকানা নিয়ে বিরোধের দ্বন্দ্বে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশঃ ০৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১০:০১:৪০ | আপডেটঃ ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৮:০৬:৩৪
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। রাঙামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড সংলগ্ন একটি দোতলা ভবন (বিল্ডিং) এর মালিকানা নিয়ে দু’পক্ষের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। গতকাল শক্রবার দিনে-দুপুরে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে বৈধ মালিককে মারধর করে বের করে দিয়ে দোতলা বিল্ডিং বাড়ি দখল করে নিয়েছে এইচআরএম শাজাহান। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে দোতলা ভবন মালিকানা দাবি করা আঞ্জুয়ারা বেগম।

সংবাদ সম্মেলন করে আঞ্জুয়ারা বেগম ও তার পরিবারের সদস্যরা সংবাদ সম্মেলনে জানায়, লংগদু থেকে আসা শাহজাহান নামের এক ব্যক্তি ও তার মেয়েরা গত বুধবার দিনে-দুপুরে হামলা চালিয়ে শহরের উন্নয়ন বোর্ড সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা আঞ্জুমান আরা বেগমের দোতলা বসতঘরটি দখলে নিয়ে নেয়।

এসব অভিযোগ অস্বীকার অভিযোগ ও মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন দাবি করে ‘‘কেয়ার টেকার বাড়ির মালিক বনে যাওয়া যড়যন্ত্রকারী থেকে মুক্তি চাই’’ এমন শিরোনামে উক্ত নির্মিত দোতলা ভবনের মালিকানা দাবি করে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেছে ব্যবসায়ী এইচআরএম শাজাহান।

আজ শনিবার বিকেলে রাঙামাটি প্রেসক্লাবে  সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শাহজাহান বলেন, রাঙামাটি শহরের রিজাব বাজারস্থ ২নং ওয়ার্ড এর উন্নয়ন বোর্ড’ পিছনে আমার বসতি জায়গা জোর পূর্বক দখল করতে চাচ্ছে আমার কেয়ার টেকার আনজুয়ারা বেগম নামের এক নারী। আমার অবর্তমানে ওই নারী আমার স্ত্রীর নামীয় জায়গা নিজ নামে করে বাড়ির কেয়াটেকার থেকে মালিক বনে যাওয়ার চেষ্টা করছে এবং আমি, আমার পরিবারকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। এজন্য আমি এ নারীর ষড়যন্ত্রের হাত থেকে বাঁচতে চাই।

তিনি আরো বলেন, দুঃখ জনক হলেও সত্য যে জবর দখলকারী আনজুয়ারা বেগম আমার মালিকনাধীন বসতঘর থেকে আমাকে ও আমার পরিবারবর্গকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে আমার মালিকনাধীন বসত ঘরে এক পার্শ্বে অবৈধভাবে আয়-রোজগারের পথ খুলে বসেন। আমি তাকে অনেকবার সৎ পতে ফিরে আসার জন্য তার অবৈধভাবে দখলে থাকা আমার বসতঘরের অংশ বিশেষ ছেড়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা সত্বেও সে আমার কথার কোন প্রকার কর্ণপাত না করে আমার বসতঘরের একটি অংশ অবৈধভাবেদখল করে রেখে অসামাজিক কর্মকান্ড করে অবৈধভাবে টাকার মালিক হচ্ছে।


রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions