মঙ্গলবার | ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা দিবসের আলোচনা সভায়

সেনা সদস্যদের উপর হামলা করে পার্বত্য চট্টগ্রামকে অস্থিতিশীল করতে চাইছে : দীপংকর তালুদার এমপি

প্রকাশঃ ২১ অগাস্ট, ২০১৯ ০৪:০৬:২৬ | আপডেটঃ ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৪:০৫:০৬
সিএইচটি টুডে ডট কম, রাঙামাটি। সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও রাঙামাটি আসনের সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার এমপি বলেছেন, বিএনপি জামাত জোট ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা করে আওয়ামীলীগকে নিশ্চিহৃ করতে চেয়েছিল, একইভাবে পার্বত্য চট্টগ্রামের আঞ্চলিক দলগুলো আওয়ামীলীগ নেতা কর্মীদের হত্যা করে তাদেরও নিশ্চিহৃ করতে চাইছে।

তিনি আরো বলেন, গত রোববার ১৮ আগষ্ট রাজস্থলীতে টইলরত সেনাবাহিনীর উপর হামলা চালিয়ে একজন সেনা সদস্যকে হত্যার মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রামকে অস্থিতিশীল করে তুলতে চেয়েছিল, কিন্তু সেনাবাহিনীর সদস্যরা ধৈর্য্যর সাথে পরিস্থিতি মোকাবেল করেছে, তারা মনে করেছিল সেনাবাহিনীর উপর হামলা করলে সেনাবাহিনী ও এখানে পাল্টা আঘাত  করবে, কিন্তু সেনাবাহিনী তা করেনি, তারা অত্যন্ত ধৈর্য্যরে সাথে পরিস্থিতি মোকাবেলা করেছে। এজন্য সেনাবাহিনীকে আমরা ধন্যবাদ জানাই এবং ঘটনার সাথে যারা জড়িত তাদের শাস্তির দাবী জানাই।

দীপংকর তালুকদার আরো বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে, ভারতে বসে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা ভারতের অংশ বলে দাবি করছে, এসব ষড়যন্ত্র আমরা প্রতিহত করব, আমরা বাংলাদেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব ও অখন্ডতা আমরা যে কোন কিছুর বিনিময়ে রক্ষা করব।

২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার আজ রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের আয়োজনে প্রতিবাদে সমাবেশে সভাপতির বক্তব্য দীপংকর তালুকদার এসব কথা বলেন।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বরের পরিচালনায় জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন  রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন, সহ-সভাপতি নিখিল কুমার চাকমা, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী মোঃ সোলাইমান চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক মনছুর আলী, জেলা যুবলীগের সভাপতি ও রাঙামাটি পৌরসভা মেয়র মোঃ আকবর হোসেন চৌধুরী, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মোঃ শাওয়াল উদ্দিন, মৎস্যজীবিলীগের সভাপতি উদয়ন বড়–য়া, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক প্রকাশ চাকমা প্রমূখ।

দীপংকর তালুকদার আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখন ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামীলীগের নেতৃত্বকে চিরতরে ধংস করে দেয়ার জন্য গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। বর্তমানে ষড়যন্ত্র অব্যাহত আছে সকল ষড়যন্ত্রকে চিরতরে ধংস করে দেওয়ার জন্য নেতাকর্মীদের সজাগ থাকার আহবান জানান তিনি।

এর আগে সকালে একটি বিক্ষোভ মিছিল রাঙামাটি পৌরসভা থেকে বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। সেখানেই গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

রাঙামাটি |  আরও খবর
এইমাত্র পাওয়া
আর্কাইভ
সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭-২০১৮।    Design & developed by: Ribeng IT Solutions